STATUS UPDATE: কিটো ডায়েট ছাড়া কোনো কথা হবে না 😊

(VIDEO) Rule Of Thirds | রুল অফ থার্ডস

ফটোগ্রাফি কম্পোজিশনে সবচেয়ে কার্যকরী এবং বহুল ব্যবহৃত রুল হচ্ছে রুল অফ থার্ডস।

ছোট্ট ইতিহাস:

১৮ শতকের দিকে এই রুলের ব্যবহার শুরু হয় জন থমাস স্মিথ (John Thomas Smith) নামের একজন পেইন্টারের মাধ্যমে। আমরা তাকে রুল অফ থার্ডসের জনক (The inventor of Rule of thirds) বলতে পারি। এই রুল দাবী করে, কিছু দেখার সময় মানুষের চোখ প্রাকৃতিকভাবে চারটি পয়েন্টে ঝুঁকে পড়ে বা আকর্ষিত হয়। এবং ক্ষেত্রবিশেষে এই চারটি পয়েন্টের কোনোটিতে অবজেক্ট রাখলে সেটা দর্শকের জন্য আকর্ষণীয় ও চোখের জন্য আরামদায়ক হয়ে থাকে।

 

চলুন দেখে নেই বিষয়টা আসলে কি

এই রুল অনুযায়ী ছবির ফ্রেমকে আাড়াআড়ি ও লম্বালম্বি সমান ৩ ভাগে ভাগ করে নিন। এবারে, আপনার ছবির সাবজেক্ট রাখুন এই আড়াআড়ি ও লম্বালম্বি ভাগের মিলিত ৪ টি স্থান অথবা তার আশে পাশে। ব্যাস এটাই রুল অফ থার্ডস।

কেন রুল অফ থার্ডস?

ছবির কম্পোজিশনের উপর দর্শকের চোখ আকৃষ্ট করার জন্য রুল অফ থার্ডস অত্যন্ত কার্যকরী একটি পদ্ধতি। ছবির সাবজেক্ট যদি বিনা কারনে ফ্রেমের একেবারে মাঝখানে থাকে তাহলে বিষয়টা বোরিং হয়ে যায় এবং দর্শক এখান থেকে ছবির কোনো ইমোশন অনুভব করতে ব্যর্থ হয়। কিন্তু যদি সাবজেক্ট ওই চারটি পয়েন্টের কাছাকাছি রাখা হয় তাহলে ছবিতে একটি গতিময়তা অথবা বলতে পারেন জীবন তৈরি হয়। ফটোগ্রাফার রুল অফ থার্ডস ব্যবহার করে ছবির মাঝে লুকিয়ে থাকা ইমোশন দর্শকের কাছে তুলে ধরতে সক্ষম হয়।

সাবজেক্ট ছাড়াও ছবির ব্যকগ্রাউন্ডে থাকা বিভিন্ন অবজেক্ট ঠিক ঠাক মত কম্পোজিশনে ব্যবহার করার জন্য রুল অফ থার্ডস অত্যন্ত কার্যকরী।

আপনার ক্যামেরায় থাকা গ্রিড ভিউ এনাবল করে নিন। মোবাইল ফোনেও এই গ্রিড রয়েছে যা আপনি এনাবল করে রুল অফ থার্ডস প্র্যাকটিস করতে পারেন। Rule of thirds ফলো করে ছবি তুলুন এবং শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে, পার্থক্যটা নিজেই বুঝতে পারবেন।

আমার কিছু ছবি যেখানে রুল অফ থার্ডস ঠিক ঠাক মত ব্যবহার করেছি:

Rule of thirds by RobinsHQ Photography

Rule of thirds by RobinsHQ Photography

Rule of thirds by RobinsHQ Photography

Rule of thirds by RobinsHQ Photography

রুল অফ থার্ডস ব্রেক করা যাবে?

অবশ্যই যাবে। তবে আপনি রুল অফ থার্ডস ইগনোর করতে পারবেন না। শুধুমাত্র আপনি বুঝে জেনে শুনে এই রুলটি ব্রেক করবেন। অর্থাৎ ইন্টেনশনালি ব্রেক করতে পারবেন।

যেমন ধরুন ছবির সাবজেক্ট যদি ফ্রেমের মাঝে রাখা হয় তাহলে ভিন্ন ধরনের একটি কম্পোজিশন তৈরি হয়,  ফর এক্সামপল, সিমেট্রি অথবা প্যাটার্ন, তখন এই সিমেট্রি তুলে ধরার জন্য আপনি রুল অফ থার্ডস ব্রেক করবেন।

Symmetry by RobinsHQ Photography

সুতরাং আজ থেকে আর ফ্রেমের মাঝখানে অবজেক্ট রেখে ছবি তোলা নয়। মাঝে রাখবো যদি সত্যিই কোনো ভ্যালিড কম্পোজিশনাল রিজন থাকে।

আগামী পর্বে ফটোগ্রাফির অন্যান্য কম্পোজিশন নিয়ে কথা বলবো। সাথে থাকুন!

ভিডিও দেখুন:

SUBSCRIBE

অন্যান্য পোস্ট